অন্য দেশে ব্যবসা স্থানান্তর না করতে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান: চীনা রাষ্ট্রদূত লি জিমিং। 1

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ উবাভ নিউজ

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের পর বাংলাদেশে বেড়ে যায় চীনা রসুন, আদা ও দারুচিনির দাম। এবার বাড়ল শিল্পের কাঁচামাল, যন্ত্র ও যন্ত্রাংশ, বিভিন্ন শিল্পপণ্য, নিত্যব্যবহার্য ও ভোগ্যপণ্যের দাম। বিশেষ করে ঢাকার পাইকারি ব্যবসাকেন্দ্রগুলোতে ব্যবসায়ীরা চিন্তিত। কারণ, তাদের কাছে যে মজুত আছে, তা শেষের পথে। নতুন করে আমদানির চালান কবে আসবে, তা অনিশ্চিত।ব্যবসায়ীরা বিকল্প বিভিন্ন দেশ থেকে আমদানী করার কথা চিন্তা করছে।

 সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে কূটনৈতিক প্রতিবেদকদের সংগঠন ‘ডিক্যাব’ আয়োজিত ‘ডিক্যাব টকে’ তিনি বলেন, ‘পরিস্থিতি বিবেচনা করে অন্য দেশে ব্যবসা স্থানান্তর হবে ব্যয়বহুল, অসম্ভব এবং অপ্রয়োজনীয়।
 বিকল্প হিসেবে অন্য দেশে ব্যবসা স্থানান্তর না করতে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত লি জিমিং।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে চীনা রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশ ও মিয়ানমারই এখানে মূল ভূমিকা পালনকারী, চীন নয়। তবে এই সমস্যার সমাধানে চীন দুই দেশকেই সহায়তা করছে।

এসময় রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে ত্রিপক্ষীয় পদ্ধতির কথা উল্লেখ করে এ বিষয়ে দ্রুত অগ্রগতির আশাবাদ ব্যক্ত করেন চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন ডিক্যাব সভাপতি আঙ্গুর রাহার মন্টি এবং সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুর রহমান।

উবাভ নিউজ দেস্ক/জেড এম/ইউএনবি।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

eleven + 2 =