ssaviation

অনেক নাটকীয়তার পর অবশেষে বিপিএল খেলতে রাজি হয়েছেন উইন্ডিজ ওপেনার ক্রিস গেইল। তবে শর্ত দিয়েছেন ম্যাচ প্রতি পারিশ্রমিক নিবেন ২০ হাজার ডলার! খেলতে পারবেন নতুন বছর থেকে। এতেও রাজি হয়েছে চট্রগ্রাম তবে শর্ত দিয়েছে তারাও। ফিট হলে তবেই খেলতে পারবেন গেইল। বিপিএলের সঙ্গে ক্রিস গেইলের সম্পর্ক ২০১২ সালে টুর্নামেন্টের প্রথম আসর থেকেই। ইনজুরির কারণে শুধু গত বছর খেলতে পারেননি। এবার ইনজুরি থাকা সত্ত্বেও বিপিএলের প্লেয়ার ড্রাফটে এজেন্টের মাধ্যমে নাম দিয়েছিলেন এ জ্যামাইকান। তাকে দলেও নিয়েছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স।

ssaviation

অথচ কয়েকদিন আগেই গেইল সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, তাকে না জানিয়েই বিপিএলের প্লেয়ার ড্রাফটে তার নাম দেওয়া হয়েছে। গতকাল জানা গেল বিপিএলে খেলতে রাজি গেইল। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের টিম ডিরেক্টস জালাল ইউনুস বলেন, গেইল বিপিএলে খেলতে রাজি আছেন। এজেন্টের কাছ থেকে তারা জানতে পেরেছেন, ৪ জানুয়ারি থেকে পাওয়া যাবে তাকে। তবে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের পক্ষ থেকে গেইলকে ম্যাচ ফিটনেসের শর্ত জুড়ে দেওয়া হয়েছে। এই শর্ত মেনে খেলতে রাজি হলে আবারও বিপিএলে দেখা যেতে পারে গেইল শো।

ড্রাফটে থাকা বিদেশি ক্রিকেটারদের সম্মানী এক লাখ ডলার। গেইলের সম্মানীও তাই। কিন্তু এত কম টাকায় খেলতে গড়িমসি এ ক্যারিবিয়ানের। যে কারণে বেশি টাকার দাবিতে টালবাহানা করছিলেন তিনি। প্রতি ম্যাচে ২০ হাজার ডলার চেয়েছেন বলে জানান জালাল ইউনুস। এই টাকাতেই শেষ পর্যন্ত তাকে দলে নেওয়া হতে পারে। তবে বঙ্গবন্ধু বিপিএল টি২০ টুর্নামেন্টের প্রথম থেকে গেইলকে পাওয়া যাবে না।

হ্যামস্ট্রিং ইনজুরিতে পড়ায় জাতীয় দলেও খেলতে পারছেন না তিনি। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের টিম ডিরেক্টর জালাল জানান, ফিরতি লেগের তিনটি ম্যাচে পাওয়া যাবে গেইলকে। আর প্লে অফ এবং ফাইনাল ম্যাচ পর্যন্ত গেলে আরও তিনটি ম্যাচে দেখা যাবে টি২০’র এই ফেরিওয়ালাকে। আসল কথা হলো, চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের শর্ত মেনে গেইল শেষ পর্যন্ত খেলতে রাজি হবে কি-না সেটা দেখার বিষয়।

উবাভ অনলাইন ডেস্ক/জেড এম

একটি উত্তর দিন

অনুগ্রহ পূর্বক আপনার মন্তব্য লিখুন
অনুগ্রহ পূর্বক এখানে আপনার নাম লিখুন

17 − four =